ইন্সুরেন্স কি? কেন আপনার ইন্সুরেন্স করা জুরুরি?

5/5 - (1 vote)

বর্তমান সময়ে আমাদের কাছে ইন্সুইরেন্স খুবই পরিচিত একটি শব্দ হয়ে দাড়িয়েছে। সারা দেশের অলিতে গলিতে হয়ে গেছে নানা ইন্সুইরেন্স কোম্পানী। কিন্তু আপনি কতটুকু জানেন এই ইন্সুইরেন্স সম্পর্কে? চলুন আজকে বিস্তারিত আলোচনা করে আসি এ বিষয়ে।

আজকে আমি আপনাদের সাথে ইন্সুরেন্স কি? কেন ইন্সুরেন্স করবেন? ইন্সুরেন্স কত প্রকার সব নিয়ে আলোচনা করব। তাহলে চলুন শুরু করি। 

ইন্সুরেন্স কি? কেন আপনার ইন্সুরেন্স করা জুরুরি?
ইন্সুরেন্স কি? কেন আপনার ইন্সুরেন্স করা জুরুরি?

ইন্সুরেন্স কি (What is insurance)? 

বর্তমানে ইন্সুরেন্স (insurance) নিয়ে আমাদের অনেকের মধ্যে অনেক রকমের ভুল ধারণা রয়েছে। অনেকেই ভাবে যে ইন্সুরেন্স হলো এক ধরণের ইনভেস্টমেন্ট স্কিম যেখানে  টাকা জমা রাখা হয়।   

পরবর্তীতে এই জমা করা টাকা থেকে সুদ (interest) তুলে নিতে পারি। ঠিক যেভাবে আমরা বিভিন্ন ব্য্ংকে savings scheme, Fixed deposit বা mutual fund করি ।

কিন্তু ইন্সুরেন্স এভাবে টাকা জমা রেখে ভবিষ্যতে সেই টাকা থেকে সুদ তুলে  আয় করার মাধ্যম নয়।

এখানেই বেশিরভাগ লোকেরা ইন্সরেন্স এবং ইভেস্টমেন্ট স্কিমের মাঝে থাকা পার্থক্য বুঝতে পারে না।

ইন্সুরেন্সের মাধ্যমে আপনি কখনোই ডিরেক্ট প্রোফিট আয় করতে পারবেন না।

তবে  ইন্সুরেন্স স্কিমের মাধ্যমে ভবিষ্যতে হতে পারা বিভিন্ন ক্ষতির  বিনিময়ে ভালো পরিমানে টাকা পেয়ে যেতে পারবেন অর্থাৎ সেই ক্ষতির ক্ষতিপূরণও বলা চলে। 

তাই, ইন্সুরেন্সের এর মাধ্যমে আপনি সরাসরি ভাবে কোনো অর্থ লাভ না করলেও, ভবিষ্যতে আপনার জীবনে  ঘটতে পারা বিভিন্ন ক্ষতি বা সমস্যার জন্য আপনাকে ভালো পরিমানে টাকা, ইন্সুরেন্স কোম্পানি (Insurance company) দিবেন।

চলুন বিষয়টি একটি উদাহারন দিয়ে বুঝি। ধরুন, আপনি একটি health insurance company হতে  নিজের হেল্থ ইন্সুরেন্স (health insurance) করলেন।  ইন্সুরেন্স কোম্পানির সাথে আপনার চুক্তি প্রত্যেক বছর আপনাকে ৩ হাজার টাকা করে প্রিমিয়াম হিসেবে দিতে হবে।

এখন আপনার প্রত্যেক বছরে দেয়া সেই ৩০০০ টাকার প্রিমিয়াম এর জন্যে আপনাকে এক টাকা ও দেয়া হবে না।

কিন্তু যদি আপনার স্বাস্থের সাথে জড়িত কোনো সমস্যা ভবিষ্যতে দেখা যায় এবং তার জন্য আপনাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। সেক্ষেত্রে হাসপাতালের সেই সম্পূর্ণ খরচ ইন্সুরেন্স কোম্পানি নিজেই দিবে।আপনার যত বেশি প্রিমিয়াম আপনি ইন্সুরেন্স কোম্পানিকে দিবেন ঠিক ততটাই বেশি খরচ ইন্সরেন্স কোম্পানিও যেকোনো ক্ষতির জন্য আপনাকে দিবে।

সুতরাং বীমা বা ইন্সুরেন্স  হলো এমন একটি চুক্তি বা  যেখানে একটি ছোট্ট প্রিমিয়াম (টাকা) এর বিপরীতে, ভবিষ্যতে আপনার হওয়া বিভিন্ন ক্ষতি যেমন:-ঘরের ক্ষতি, জিনিসের ক্ষতি, বাহনের ক্ষতি, স্বাস্থ্যের ক্ষতি, চুরি বা মৃত্যু এবং আরো অনেক ধরণের ক্ষতি হওয়ার ফলে ইন্সুরেন্স কোম্পানির থেকে ভালো পরিমানে ক্ষতিপূরণপাওয়া যাবে।

আপনার জন্য আর পোস্ট আমাদের ওয়েবসাইটে: 



ইন্সুরেন্স কত প্রকার? 

এমনিতে ইন্সরেন্স নানা প্রকারের হয়ে থাকে।  এবং আপনি চাইলে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবশ্যই ইন্সুরেন্স করে রাখতে পারেন

কিন্তু ৮ রকমের ইন্সুরেন্স অধিক জনপ্রিয় অর্থাৎ মানুষকে এসব ইন্সুরেন্স বেশি পরিমানে করতে দেখা যায়। 

  • জীবন বীমা (Life Insurance). 
  • স্বাস্থ্য বীমা (Health insurance).
  • সাধারণ বীমা (General Insurance).
  • দুর্ঘটনা বীমা (Accidental Insurance).
  • ভ্রমণ বীমা (Travel Insurance).
  • ঘরের ইন্সুরেন্স (Building insurance).
  • অগ্নি বীমা (Fire Insurance).
  • সম্পত্তি বীমা (Property Insurance).
  • General Insurance. 

মূলত যে ইন্সুরেন্স  আপনার জীবনের সাথে জড়িত না বা যেটা জীবন বীমার সাথে জড়িত না, সে সব ইন্সুরেন্সকে সাধারণ বীমার (General Insurance) আওতায় রাখা হয়।

তাই প্রধানত ইন্সুরেন্স দুই প্রকারের। লাইফ ইন্সুরেন্স এবং জেনারাল ইন্সুরেন্স । লাইফ ইন্সুরেন্সের বাইরে যত প্রকার ইন্সুরেন্স রয়েছে সবগুলোই জেনারেল ইন্সুরেন্স।

জীবন বীমা কি ? (What Is Life Insurance) 

জীবন বীমা বা লাইফ ইন্সুরেন্স এক ধরণের ইন্সুরেন্স যেখানে কোন ব্যাক্তি একটি ইন্সুরেন্স কোম্পানিকে প্রতিনিয়ত প্রিমিয়াম জমা দেন। একটি নির্দিষ্ট সময়ের পর অথবা সেই ব্যাক্তির মৃত্যুর পর একটি ভালো পরিমানের টাকা পাওয়ার উদ্দেশ্যে।

লাইফ ইন্সুরেন্সের (life insurance) প্রয়োজনীয়তা কি ?

যদি আপনার পরিবার থাকে এবং আপনার পরিবারে কেবল আপনিই আর্থিক চাহিদা মেটান তাহলে একটি  term life insurance করাটা আপনার জন্য অনেক জরুরি।

Term life insurance এক প্রকারের ইন্সুরেন্স যেখানে, যেই ব্যাক্তির নামে ইন্সুরেন্স করা হয়েছে সেই ব্যক্তির যদি কোনো কারনে মৃত্যু হয়, তাহলে তার মৃত্যুর পর একটি নির্ধারিত পরিমান অর্থ তার পরিবারকে দেয়া হয়। এবং আপনার পরিবার কত টাকা পাবেন তা নির্ভর করবে আপনার দেওয়া প্রিমিয়ামের উপর।sum insured value যতটা বেশি হবে আপনার তত বেশি প্রিমিয়াম দিতে হবে ।

তাহলে জীবন বীমা বা লাইফ ইন্সুরেন্স কি এবং লাইফ ইন্সুরেন্স কেন প্রয়োজন, সেই ব্যাপারে আশা করি আপনার ভালো করেই বুঝেছেন।

স্বাস্থ বীমা (health insurance) এর প্রয়োজনীয়তা কি?

বর্তমান সময়ে অনেক বেশি জরুরি একটি ইন্সুরেন্স হলো হেল্থ ইন্সুরেন্স (Health Insurance)। যদি আপনাকে  ছোট থেকে ছোট কোন কারণেও হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়, তাহলেও আপনার প্রচুর  টাকা খরচ করতে হবে।

যদি একবার হাসপাতালে ভর্তি হতে হয় তাহলেই টের পাবেন, কিভাবে আপনার হাত থেকে টাকা জলের মতো চলে যাবে। এই ক্ষেত্রে যদি আপনার একটি হেল্থ ইন্সুরেন্স করা থাকে তাহলে সেই  সময়ে যখন আপনার হাসপাতালে প্রচুর টাকা দিতে হবে, তখন আপনার একটা টাকাও নিজের থেকে দিতে হবেনা।

হাসপাতালের সম্পূর্ণ খরচ অথবা যতটুকু আপনার sum insured value আছে সেই সম্পূর্ণ টাকার হাসপাতাল খরচ, ইন্সুরেন্স কোম্পানিথেকে দিয়ে দেয়া হবে। আসা করি আপনারা নিজেরাই বুঝতে পারছেন যে কেন আজকের দিনে হেল্থ ইন্সুরেন্স এত দরকারী। 

সাধারণ বীমা কি ? (What Is General Insurance)

General insurance এমন এক প্রকার ইন্সুরেন্স , যেটিতে  life insurance ছাড়া সব ধরণের ইন্সুরেন্স রয়েছে। মানে, এমন সব ধরণের ইনসুরেন্স সাধারণ বীমার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত যেগুলো মানুষের জীবনের সাথে কোনভাবেই জড়িত না। বা, অন্যভাবেও বলা যায় যে, আপনার স্বাস্থ্য এবং জীবন বাদে অন্যান্য যত মূল্যবান জিনিস আছে সেগুলোর ইন্সুরেন্স করা মানেই হলো সাধারণ ইন্সুরেন্স।এই বীমাতে আপনার মূল্যবান জিনিস গুলো চুরি হওয়া, হারিয়ে যাওয়া বা ক্ষতি হওয়ার ওপরে ইন্সুরেন্স করা হয়।

ইন্সুরেন্স প্রিমিয়াম (Insurance Premium) বলতে কি বোঝায় ? 

ইন্সুরেন্স প্রিমিয়াম  এর মানে হলো, সেই টাকার পরিমাণ যেটা আপনি মাসে মাসে বা বাৎসরিক ভাবে ইন্সুরেন্স কোম্পানিকে দিবেন ইন্সুইরেন্স নেয়ার পর।

মোট বীমা অঙ্ক কি? 

জীবন বীমার মূল বিষয়বস্তু হলো মানুষের জীবন৷ আমরা সবাই জানি মানুষের জীবনের কোন নির্দিষ্ট মূল্য নির্ধারণ করা অসম্ভব।

তাই জীবন বীমার ক্ষেত্রে গ্রাহকের নির্দিষ্ট প্রিমিয়ামের বিপরীতে কোন ইন্সুরেন্স কোম্পানি যে সেবা প্রদান করে থাকে তাকে মোট বীমা অঙ্ক বলে। 

শেষ কথা ,

আসা করি আজকেন পোস্টে আপনাদের ইন্সুরেন্স নিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ ধারণা দিতে পেরেছি। আমাদের জীবনের জন্য হেল্থ ইন্সুরেন্স এবং লাইফ ইন্সুরেন্স দুটোই অনেক বেশি দরকারী। কারণ অসুস্থতা এবং মৃত্যুর কোনই নিশ্চয়তা নেই। যদি এসব ইন্সুরেন্স করা থাকে তাহলে আপনার পরিবারের যথেষ্ট উপকার হবে।

যদি কোন প্রশ্ন থাকে অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top